Saturday, 27 Feb 2021

সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी العربية العربية

সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী

“আল্লাহর গুণাবলীর বহিঃপ্রকাশ এই সৃষ্টি।”

“মানুষের চিন্তা ও কর্মগুলিকেই তাহার ধর্ম বলে।”

“কামিয়াব হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত প্রত্যেক ব্যক্তির নফস নিজেই তাহার জন্য বড় প্রতারক।”

সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী

“সামনে সুন্দর সময় আসছে। মানুষ সত্য খুঁজবে, সত্য গ্রহণ করবে। পৃথিবীতে শান্তি আসবে।”

“মানুষ মরিয়া পঁচিয়া গেলেই তাহার মৌলিক অস্তিত্ব শেষ হইয়া যায় না। উহা সুক্ষ্মভাবে সম্পূর্ণরূপে অস্তিত্বশীল হইয়া থাকে। পতন ঘটে স্থূলদেহের, মন-মস্তিষ্কের উৎকর্ষের পতন ঘটে না। উহাকে মানব বীজরূপে আল্লাহ সংরক্ষিত করিয়াই রাখেন।”

“প্রেম অখণ্ড এবং অমর একটি বিষয়। ইহা মোহের মত মৃত্যু দ্বারা খণ্ডিত হয় না। সুতরাং যাহারা প্রেমের অধিকারী তাহারা মৃত্যুকে জয় করিয়াছেন অর্থাৎ মরার আগে মরিয়া গিয়াছেন।”

সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী
সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী

“প্রাণের মায়া ত্যাগ করিয়া পরিপূর্ণ আত্মসমর্পণের দ্বারাই কেবল ঈমান অর্জ্জন করা যায়।”

“মুসলমান শব্দের অর্থ আত্মসমর্পণকারী। তিনি যে কোন ধর্ম বর্ণ গোত্রের লোক হতে পারেন। মুসলমান হওয়ার জন্য কাউকে ধর্ম ত্যাগ করে নাম পাল্টাতে হয় না।”

“গাছের মধ্যে যেমন আগুন লুকাইয়া রাখা হইয়াছে, না জ্বালাইলে উহা চোখে দেখা যায় না, সেইরূপ মানুষের মধ্য হইতে পুনরায় মানুষ তৈরি করিবার এমন ব্যবস্থা রহিয়াছে যাহা সাধারণ মানুষের চোখে পড়ে না।”

সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী
সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী

“যে ঘরেই মাওলা আলীর জন্ম হয় তাহা সার্বজনীনভাবে ও সর্বযুগে তোয়াফযোগ্য। আলী পর্যায়ের একজন ব্যক্তির তোয়াফ মানে মহানবীর তোয়াফ।”

“অন্তরে ‘হাক্কুল একীন’ অর্থাৎ দৃঢ় আত্মপ্রত্যয় বা দৃঢ় বিশ্বাস না হওয়া পর্যন্ত মনের চঞ্চলতার অবসান ঘটে না।”

“যে ব্যক্তি পাগলই হয় নি, সেই তো আসলে পাগল। আল্লাহর প্রেমে পাগলই সুস্থ। অথচ যে পাগল হয় নাই, সেই আসলে অসুস্থ।”

“সৎ কর্মের অভ্যাস মজ্জাগত করিয়া লইলে মানুষের বীজের মধ্যে সেই স্বভাব কার্যকরী হইতে থাকে, কারণ যেমন মানুষ তেমনই তাহার শুক্রীট। সৎ অভ্যাস এবং সৎ স্বভাবের দ্বারা ইহার দ্রুত পরিবর্তন ঘটে যাহা বৃক্ষ বা অন্য জীবের মধ্যে তেমন দ্রুত ঘটে না।”

সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী
সূফী সদর উদ্দিন আহম্মদ চিশতীর অমর বাণী

“জ্ঞানের প্রবাহ লাভ করাই মানসিক সাফল্য। যে স্বর্গীয় জ্ঞান মানুষ সাধনা দ্বারা অর্জন করে ভাষায় তাহার বহি:প্রকাশকে জান্নাতের নহর বা ফোয়ারা বলে।”

“মানুষের মধ্যে বীজরূপে নিহিত তাহার জন্মগত গুণাবলী ভুলাইয়া দিয়া আল্লাহ তাহাকে নিষ্পাপ ফেরেস্তারূপে জাহান্নামের পরীক্ষা ক্ষেত্রে সংশোধনের জন্য পাঠাইয়া থাকেন।”

“বৃক্ষ-বীজের মধ্যে যেমন পূর্ণ বৃক্ষ বিরাজ করে মনুষ্য-বীজের মধ্যেও পূর্ণ একটি সমগুণের মানুষ বিরাজ করে। কিন্তু এই দুইয়ের মধ্যে অনেক প্রভেদ। ইহা আল্লাহর একটি বিশেষ দয়া বা রহমত যে, মানুষকে তিনি ভালমন্দ নির্বাচনের অধিকার এবং ইহার উপর প্রবল ইচ্ছাশক্তি দান করিয়াছেন। এই ইচ্ছাশক্তির সাহায্যে সে তাহার স্বভাবের মধ্যে মৌলিক পরিবর্তন আনয়ন করিতে পারে। মানুষের গড়া স্বভাবকে আল্লাহর গড়া স্বভাবে পরিণত করিতে পারে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: অনুমতিহীন কপিকরা দণ্ডনীয় অপরাধ!
Copy link
Powered by Social Snap