হোম বাণী ও উপদেশ খোদা তালাশীদের জন্য উপদেশ।

খোদা তালাশীদের জন্য উপদেশ।



Web Design

খোদা তালাশীদের জন্য উপদেশ।

খোদা তালাশীদের জন্য বিশ্বওলী খাজাবাবা হযরত শাহসূফী ফরিদপুরী (কুঃছেঃআঃ) ছাহেবের উপদেশঃ-

অমূল্য সময় চলিয়া যায়। তোমরা আল্লাহতায়ালার রেজামন্দি হাসিলের জন্য দেলে পীরের মহব্বত কায়েম কর। পীরের মহব্বত যখন দেলে আসিবে সেই সময় আল্লাহ ও রাসূলের মহব্বত তোমাদের দেলে আসিবে। পীরের মহব্বতই খোদাপ্রাপ্তি সাধনার প্রথম দরজা। পীরের মহব্বত তোমাদের দেলে আল্লাহ রাসূলের মহব্বত সৃষ্টি করিবে। চৌদ্দই রাত্রির পূর্ণিমার চাঁদের মত দেলকে উজ্জল ও রওশন করিয়া দিবে। মুর্দা দেল জিন্দা হইয়া আল্লাহ আল্লাহ জেকের হইতে থাকিবে। মাথার চান্দি হইতে পায়ের তলা পর্যন্ত দেহের তন্ত্রীতে তন্ত্রীতে আল্লাহতায়ালার জেকেরের বাজনা বাজিতে থাকিবে।

দেল আল্লাহতায়ালার জেকেরে পরিপূর্ণ হইবে। তখন লতিফায়ে কালব জাত আহ্দিয়াতের নূরে পরিপূর্ণ হইবে। সেই লতিফায়ে কালব মহা কালবের সন্ধান পাবে। “লা সালাতা ইল্লা বে হুজুরেল কালব” কি তাহা নিজ অভিজ্ঞতায় আস্বাদন করিতে পারিবে। পীর ছাড়া এই অমূল্য নেয়ামত কোনদিন কেউ হাসিল করতে পারেন নাই। অন্য কোন উপায়ে হাসিল হইবেও না।

তাই বুযুর্গানে দীন বলিয়াছেন,
مَنْ لَيْسَ لَهُ شَيْخٌ فَشَيْخَهُ شَيْطَانَ-

অর্থাৎ- “যাহার পীর নাই তাহার পীর শয়তান।”

শয়তান তোমাদের প্রকাশ্য দুশমন। শয়তানের পক্ষ হইতে তোমাদের নাফস ওজুদ রাজ্যের সিপাহসালার। অতএব নাফসকে বাধ্য করিয়া আল্লাহর পথে আনা খুবই কষ্টকর। তাই পীরে কামেলের পাক তাওয়াজ্জুহ দ্বারা নিজের নাফসকে সংশোধন কর, নিজের কালবকে জিন্দা করিয়া নাফসকে সংশোধন করিয়া লও। তাহা হইলে নাফস, রূহ ও কালব জিন্দা হইয়া আল্লাহতায়ালার প্রেমের সমুদ্রে সাঁতার কাটিবে। দুনিয়া ও আখেরাতের হাসানাত পুরোপুরিই আল্লাহ তখন তোমাদেরকে দান করিবেন। মহাসমুদ্রের মধ্যে কত হাংগর, কুমীর, শৈবাল আছে। কিন্তু দর্শকের চোখে একমাত্র পানি বিশিষ্ট সমুদ্র ছাড়া আর কিছুই দেখা যায় না।

হযরত মনসুর হাল্লাজ (রঃ) ছাহেব যখন ঐ সমুদ্রে নিমজ্জিত হইলেন, তখন আল্লাহ ছাড়া তিনি আর কিছুই দেখিলেন না। তিনি দেখিলেন শুধু আল্লাহই আল্লাহ। এমনকি তাঁহার নিজের সম্পর্কেও জ্ঞান হারাইয়া ফেলিলেন। তাঁহার এই অনুভূতির মধ্যে তখন কোন দুনিয়ার খেয়াল ছিল না। অতএব অমূল্য সময় বহিয়া যায়। যে সময় একবার যায়, তাহা আর ফিরিয়া আসে না।

তুমি যত বড়ই জ্ঞানী, গুণী, বুদ্ধিমান, দার্শনিক, বৈজ্ঞানিক হও না কেন, শেষের ডাক আসিলে আর এক মুহূর্ত দেরী করিতে পারিবে না। শেষের ডাক কেহই ফিরাইয়া রাখিতে পারে না। অতএব পীরের সহব্বতে থাকিয়া এই দেলকে পরিস্কার করাইয়া লও। দিন থাকিতে শেষের ডাকের জন্য প্রস্তুত হও। নিজেকে চিনিলে, আল্লাহকে চিনিতে পারিবে। মান আরাফা নাফসাহু ফাকাদ আরাফা রাব্বাহু। তখন আল্লাহতায়ালার সান্নিধ্য তোমাদের নসিব হইবে।

তথ্যসূত্রঃ [শাহসূফী বিশ্বওলি ফরিদপুরী (কুঃছেঃআঃ) ছাহেবের নসিহত-সকল খন্ড একত্রে, নসিহত নং ২৩, পৃষ্টা নং ২২৮]

পূর্ববর্তী পোস্টমুরিদের নাফসকে সংশোধন করার জন্য পীরের অস্ত্র।
পরবর্তী পোস্টকামেলপীর মুরীদের জন্য খোদাপ্রাপ্তির পথপ্রদর্শক।
আমি বিজাত নই, তোমারই জাত! আজ গুন হারিয়ে গুরুত্বহীন-তুমি স্বাধীন আমি পরাধীন-অবশ্যই একসাথে ছিলাম একদিন।

এই পোস্টে একটি মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন