মাওলা আলীর শান-মান: পর্ব-১১

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी العربية العربية

মাওলা আলীর শান-মান: পর্ব-১১

মাওলা আলীর অসাধারণ শান-মান (ধারাবাহিক পর্ব নং-১১)।

দয়াল রাসূল পাক (সাঃ) বলেনঃ
أنَا الْمُنْذِرُ وَ عَلِيٌّ الْهَادِي، بِكَ يَا عَلِيُّ يَهْتَدِي الْمُهْتَدُونَ.

“আমি হলাম সাবধানকারী। আর হে আলী! তোমার মাধ্যমে পথ অন্বেষণকারীরা পথ খুঁজে পাবে”।

(তাফসীরে তাবারী ১৩:৭২,ইমাম আলী (আ.) (অনুবাদ)- ইবনে আসাকির ২:৪১৭/৯২৩)

দয়াল রাসূল (সাঃ) সমস্ত সৃষ্টি জগতের জন্য রহমত এবং সতর্ককারী হিসাবে প্রেরিত হয়েছে। দয়াল রাসূল (সাঃ) উম্মতে মোহাম্মদীকে সবসময় আহলে বায়াতের প্রতি সাবধান করে গিয়েছেন। যাতে উম্মতে মোহাম্মদী আহলে বায়াতকে আঁকড়ে ধরে মুমিন হতে পারে এবং বিপদগামী হতে রক্ষা পায়। মাওলা আলীর মাধ্যমেই সকল পথ অন্বেষণকারীরা পথ খুঁজে পেয়েছে এবং কেয়ামত পর্যন্ত পাবে। মাওলা আলী বীনে আল্লাহর পথ কখনো খুঁজে পাওয়া যাবে না। বরং মাওলা আলীর মাধ্যমেই সৃষ্টি জগতের সকল মহামানবগণ জগৎ স্রষ্টার সন্ধান পেয়েছেন। যারাই মাওলা বীনে ভিন্ন পথে ধাবিত হয়েছে, তারাই বিপদগামী হয়ে অন্ধকারে নিপতিত হয়েছে। কারণ মাওলা আলী বীনে মুসলমানদের জন্য ভিন্ন পথ খোলা নেই। বরং একটিই পথ, সেটা হলো মাওলা আলীর পথ।

নিবেদক : অধম পাপী মোজাম্মেল পাগলা।

error: অনুমতিহীন কপিকরা দণ্ডনীয় অপরাধ!