হোম আন-ক্যাটেগরি ফতেহ আলী ওয়াইসী (রহ.)-এর উল্লেখযোগ্য ৩৫জন খলিফার নাম

ফতেহ আলী ওয়াইসী (রহ.)-এর উল্লেখযোগ্য ৩৫জন খলিফার নাম

ফতেহ আলী ওয়াইসী (রহ.)-এর উল্লেখযোগ্য ৩৫জন খলিফার নাম

রাসূলনোমা আল্লামা হযরত শাহ সূফী সৈয়্যেদ ফতেহ আলী ওয়াইসী রাঃ হুজুরের রচিত সুবিখ্যাত ‘দিওয়ানে ওয়াইসী’ কিতাবে তাঁহার উল্লেখযোগ্য ৩৫ (পঁয়ত্রিশ) জন খলিফার নাম যে ভাবে বর্ণিত হইয়াছে; এখানে হুবহু সেই তালিকা প্রদান করা হইল:-

  • ১. মাওলানা আবদুল হক সাহেব (রাঃ), গ্রাম ও পোঃ-সিজগ্রাম, জেলা- মুর্শিদাবাদ, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত।
  • ২. মৌলভী আইয়াজ উদ্দীন সাহেব (রাঃ), আলীপুর, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত।
  • ৩. সূফী নিয়াজ আহমদ সাহেব (রাঃ), কাতরাপোতা, জেলা- বর্ধমান, ভারত।
  • ৪. সূফী একরামুল হক সাহেব (রাঃ), পুনাসী, জেলা- মুর্শিদাবাদ, পশ্চিমবঙ্গ।
  • ৫. মৌলভী মতিয়ুর রহমান সাহেব (রাঃ), চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ।
  • ৬. হাফেজ মোঃ ইব্রাহীম সাহেব (রাঃ), চট্টগ্রাম, বাংলাদেশ।
  • ৭. মৌলভী আবদুল আজিজ সাহেব (রাঃ), চন্দ্র জাহানাবাদ, জেলা- হুগলী।
  • ৮. মৌলভী আকবর আলী সাহেব (রাঃ), সিলেট, বাংলাদেশ।
  • ৯. মৌলভী আমজাদ আলী সাহেব (রাঃ), ঢাকা, বাংলাদেশ।
  • ১০. মৌলভী আহমদ আলী সাহেব (রাঃ), ফরিদপুর, বাংলাদেশ।
  • ১১. শাহ্ দিদার বখস সাহেব (রাঃ), পদ্মপুকুর, জেলা- হাওড়া, ভারত।
  • ১২. শাহ্ বাকিউল্লাহ সাহেব (রাঃ), কানপুর, জেলা- হুগলী, ভারত।
  • ১৩. মৌলভী আবু বকর সাহেব (রাঃ), ফুরফুরা,হুগলি, ভারত।
  • ২৫. মৌলভী আতায়ে এলাহি সাহেব (রাঃ), মঙ্গলকোট, জেলা- বর্ধমান, ভারত।
  • ২৬. মুন্সী সুলায়মান সাহেব (রাঃ), বারাসাত, জেলা- চব্বিশ পরগনা, ভারত।
  • ২৭. মৌলভী নাছিরুদ্দীন সাহেব (রাঃ), জেলা- নদিয়া, ভারত।
  • ২৮. মৌলভী আবদুল কাদির সাহেব (রাঃ), ফরিদপুর, বাংলাদেশ।
  • ২৯. মৌলভী কাজী খোদা নাওয়াজ সাহেব (রাঃ), দাহসা, জেলা- হুগলী, ভারত।
  • ৩০. মৌলভী আবদুল কাদির সাহেব (রাঃ), বৈদ্যবাটি, জেলা- হুগলী, ভারত।
  • ৩১. কাজী ফাসাহতুল্লাহ সাহেব (রাঃ), চব্বিশ পরগনা, ভারত।
  • ৩২. শায়খ লাল মোহাম্মাদ সাহেব (রাঃ), চুচুড়া, জেলা- হুগলী, ভারত।
  • ৩৩. মৌলভী সৈয়্যেদ আজম হুসাইন সাহেব (রাঃ), বর্ত্তমান অবস্থান- মদিনা শরীফ।
  • ৩৪. মৌলভী মুহাম্মদ সৈয়্যেদ ওবায়দুল্লাহ সাহেব (রাঃ), শান্তিপুর, জেলা- নদিয়া, ভারত।
  • ৩৫. মৌলভী হাফেজ মোঃ ইব্রাহীম সাহেব (রাঃ), ফুরফুরা, জেলা- হুগলী।

Source: Sureswar Darbar Sharif

পূর্ববর্তী পোস্টমাওলা আলী (আঃ) এর বিরুদ্ধে যুদ্ধ
পরবর্তী পোস্টগাউছুল আযম বলা কি শিরক?
হে মানব! তুমি তোমার প্রতিপালকের নিকট পৌঁছানো পর্যন্ত যে কঠোর সাধনা করে থাকো, তা তুমি দেখতে পাবে। - (সূরাঃ আল ইনশিকাক-৬)

এই পোস্টে একটি মন্তব্য করুন:

আপনার মন্তব্য লিখুন!
এখানে আপনার নাম লিখুন