নামাজির সঙ্গে আল্লাহ্ থাকেন না!

ভাষান্তর: | বাংলা বাংলা English English हिन्दी हिन्दी العربية العربية

নামাজির সঙ্গে আল্লাহ্ থাকেন না!

নামাজ ইবনে জিয়াদ পড়ে। নামাজ মারোয়ান পড়ে। নামাজ আনাস ইবনে নাখৈই সমর ওরফে সীমারও নামাজ পড়ে। এজিদও নামাজ পড়ে। হরে হরে সাহাবা, হরে হরে মোয়াবিয়ার মতো মিঠা মোনাফেকও নামাজ পড়ে। আহালে সুন্নাতুল জামাতের বিরাট বিশাল মনোভাবের দরুন মোয়াবিয়াকে সাহাবার মর্যাদা দিয়ে গেছেন। তাদের এই নামাজের ধরণটি দেখে মনে হতো যেন এরা মিঠা ফক্কর। হারুনুর রশিদ, মামুন, মনসুর, মোতাওয়াক্কিল এরাও নামাজ পড়েছেন। আবার মহানবির বংশের আওলাদেরাও নামাজ পড়েছেন। নামাজ পড়েছেন, মাওলা আলি ও খাতুনে জান্নাত মা ফাতেমা।

নামাজ পড়েছেন, ইমাম হাসান, ইমাম হোসাইন। নামাজ পড়েছেন, ইমাম জয়নুল আবেদিন, ইমাম আলি আকবর, ইমাম আলি আসগর, ইমাম কাশেম, ইমাম বাকের, ইমাম জাফর সাদেক, ইমাম মুসা কাজেম ও ইমাম আলি রেজা। নামাজ পড়েছেন, ইমাম আলি তাকি, ইমাম আলি নাকি ও ইমাম হাসান আসকারি। নামাজ পড়েছেন, গাউসুল আজম গাউছে পাক ও খাজা গরীবে নেওয়াজ। সবাই নামাজ পড়েছেন। নামাজের শরিয়তী বিষয়টি হলো রুকুতে সোবহানা রাব্বুল আজিম এবং সেজদার সময় সোবহানা রাব্বুল আলা তিন তিনবার করে পড়তে হয়। এই ওয়াক্তিয়া নামাজের কথাটি কোরান-এর কোথাও নাই এবং থাকতে পারে না। কোরান গবেষণা করে এটুকু পেলাম যে, দায়েমী নামাজের কথাটি সুরা মারেজের তেইশ নম্বর আয়াতে উল্লেখ করা হয়েছে। কিন্তু নামাজিদের সঙ্গে আল্লাহ্ আছেন বা থাকেন এই কথাটি কোরান-এ একবারও বলা হয় নাই।

‘ইন্নাল্লাহা মা সাবেরিন’ কোরান-এ আছে। কিন্তু ইন্নাল্লাহা মা আল মোসাললিন কোরান-এর কোথাও নাই। আল্লাহ্ সবরকারীর সঙ্গে থাকেন, এই কথাটি কোরান-এ বলা হলো, কিন্তু নামাজির সঙ্গে কেন আল্লাহ্ থাকেন না ইহার গোপন রহস্যটি বুঝতে পারলাম না। আরো মজার কথা হলো, আল্লাহ্ তাকওয়াকারীর সঙ্গেই থাকেন, খান্নাসমুক্ত নফসের অধিকারী মোহসীনিন-এর সঙ্গেও থাকেন এবং মোমিন-এর সঙ্গেও আল্লাহ্ থাকেন। কিন্তু আমানুর সঙ্গে আল্লাহ্ থাকেন না।

সমগ্র কোরান তন্ন তন্ন করে খুজেও মাত্র চারটি স্থানে আল্লাহ্ আছেন বলে ঘোষণা করা হয়েছে। আর সেই চারটি স্থান হলো, সবরকারী, তাকওয়াকারী, মোহসিনিন এবং মোমিন। কিন্তু একটি বারের তরেও আমানুর সঙ্গে আল্লাহ্ থাকেন কোরান-এ বলা হয় নাই। কেন বলা হয় নাই এই রহস্য আমার জানা নাই। আর যদি কিছুটা জানা থাকেও উহা আমি বলিব না। বললে কাউ কাউ (চিল্লাচিল্লি) হবার সম্ভাবনা আছে। এখন পাঠক ভাইদের অনুরোধ করছি, নামাজের হাকিকতে কেন আল্লাহ্ থাকেন না ইহা কেহ বুঝাইয়া দিলে ধন্যবাদ প্রদান করিব।

– কালান্দার বাবা জাহাঙ্গীর আল সুরেশ্বরী।

error: অনুমতিহীন কপিকরা দণ্ডনীয় অপরাধ!