হোম আমল ও ওজিফা চিশতীয়া তরিকার আমল।

চিশতীয়া তরিকার আমল।

চিশতীয়া তরিকার আমল।

ছওয়াব রেছানী:

(১) তওবা ৩ বার।
(২) সুরা ফাতেহা (আলহামদু…) ৩ বার।
(৩) সুরা এখলাস (কুলহু আল্লা…) ১০ বার।
(৪) দরুদ শরীফ ১১ বার (দুরুদে উম্মি)

তারপর চিশতীয়া দরুদ শরীফ কমপক্ষে ১ বার।

উপরে উল্লেখিত নিয়ম পাচঁ ওয়াক্ত নামাজ বাদ পড়িবে, শুধু এশার নামায বাদ দরুদে উম্মি ১০০ বার এবং ফজর নামায বাদ দরুদে চিশতীয়া ১০০ বার, তারপর মোনাজাত করিবে।

তবে এশার ও ফজরের পর দরুদ পড়ার আগে নিয়ত করতে হইবে।

দরুদে উম্মী-

اللهم صل على سيدنا محمدن النبى الامى وآله وسلم

উচ্চারণ: “আল্লাহুম্মা সল্লি আলা মুহাম্মাদিনিন নাবিউল উম্মি ওয়ালা আলিহি ওয়াসাল্লিম তাসলিমা।”

অর্থ: “হে আল্লাহ তুমি শান্তি ও রহমত বর্ষণ কর উম্মী নবী (যাকে হাতে কলমে শিক্ষা দেওয়া হয়নি) মুহাম্মদ (সাঃ) এর ওপর ও তার পরিবার পরিবর্গের ওপর।

দরুদে চিশতীয়া-

“আল্লাহুম্মা সাল্লি আলা সাইয়্যেদেনা মোহাম্মদ সাইদুল মুরসালিন ওয়ালা মুহিয়ে সুন্নায়েতি শায়েখে খাজা মইনুদ্দিন চিশতী ইমামুত তরিকতে আউলিয়া কামেলিন রহমাতুল্লাহি আলাইহি।”

পূর্ববর্তী পোস্টকারবালার ময়দানে যারা শাহাদাত বরণ করেন।
পরবর্তী পোস্টতরিকা মানে কি।
আমি বিজাত নই, তোমারই জাত! আজ গুন হারিয়ে গুরুত্বহীন-তুমি স্বাধীন আমি পরাধীন-অবশ্যই একসাথে ছিলাম একদিন।